শুক্রবার, ১৪ জুন ২০২৪, ০৫:৫৫ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
কুমিল্লা বুড়িচংয়ে ৯ম শ্রেণীর ছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগে যুবক কারাগারে! কুমিল্লা দেবিদ্বার এলাহাবাদ উচ্চ বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটি প্রক্রিয়া গোপনে গঠনের অভিযোগ কুমিল্লায় সাংবাদিকের উপর সন্ত্রাসী হামলা নিরাপত্তায় থানায় জিডি কুমিল্লা তিতাসে জাগর স্বদিচ্ছা ফাউন্ডেশনের পক্ষ থেকে দরিদ্রদের মাঝে ঈদ সামগ্রী বিতরণ কুমিল্লা বুড়িচং প্রেস ক্লাবের ইফতার ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত কুমিল্লায় শিশুকে তেঁতুলের লোভ দেখিয়ে ধর্ষণ শেষে হত্যা, যুবকের মৃত্যুদণ্ড কুমিল্লায় প্রতারণার মামলায় জেল থেকে বের হয়ে এবার অপহরণ করে চাঁদা আদায়ের ঘটনায় গ্রেফতার- ৩ কুমিল্লা সাংবাদিক ও কলামিস্ট জাহাঙ্গীর আলম জাবির এর মায়ের প্রথম মৃত্যুবার্ষিকী পালিত চৌদ্দগ্রাম প্রেসক্লাবের নতুন কমিটি গঠন কুমিল্লায় কর্মরত সাংবাদিক সফিউল আলমকে প্রাননাশের হুমকি!থানায় সাধারণ ডায়েরি

কুমিল্লায় বরুড়ায় আসামি কে জামিন করাতে ইউপি মেম্বারের প্রত্যয়ন জালিয়াতি

Reporter Name
  • Update Time : বৃহস্পতিবার, ১৬ সেপ্টেম্বর, ২০২১
  • ৪৫৪ Time View

বরুড়ায় আসামি জামিন করাতে ইউপি মেম্বারের প্রত্যয়ন জালিয়াতি!

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ

তিনি একজন ওয়ার্ড মেম্বার। নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইন এবং অপহরণ মামলার আসামিকে জামিন করাতে আশ্রয় নিলেন প্রত্যয়ন জালিয়াতির। ঘটনাটি কুমিল্লার বরুড়া উপজেলার ১৫নং পয়ালগাছা ইউনিয়নে ঘটেছে। ঘটিয়েছেন ওই ইউনিয়নের ২নং ওয়ার্ড এর বর্তমান মেম্বার নোমান হোসেন।

ওই ইউনিয়নের ৭নং ওয়ার্ড এর কলাখাল গ্রামের আবুল হাশেম এর ছেলে ফারুক হোসেন ২০১৫ সালে বরুড়া থানায় দায়েরকৃত নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইন এবং অপহরণ মামলার ২ নম্বর আসামি। মামলার পর দীর্ঘদিন জেলও খেটেছেন আসামি ফারুক হোসেন। তারপর জামিন হয় তার। মামলার ১নং আসামি ৭নং ওয়ার্ড এর মথুরাপুর গ্রামের শাহ জালাল।

জামিনে আসার পর দীর্ঘ সময় কোর্টে হাজিরা না দেওয়ায় আসামি ফারুক এর বিরুদ্ধে কোর্ট ওয়ারেন্ট জারি হলে বরুড়া থানার এএসআই দোলন মিয়া আসামি ফারুককে কুমিল্লা নগরীর ইয়াসিন মার্কেট এলাকা থেকে গ্রেফতার করে জেল হাজতে প্রেরণ করেন।

তাকে জামিনে মুক্ত করার জন্য অসদুপায় অবলম্বন করেন ফারুকের পার্শ্ববর্তী (০২নং) ওয়ার্ড মেম্বার নোমান। গত ২৩ আগস্ট ইং তারিখে ১৫নং পয়ালগাছা ইউনিয়নের প্যাডে, মেম্বার নোমান হোসেন এর স্বাক্ষরিত একটি প্রত্যয়ন পত্র দেন। যার এখতিয়ার তার নেই এবং জালিয়াতির সামিল।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, ওই মেম্বার ১৫নং পয়ালগাছা ইউনিয়নের মথুরাপুর, মান্দারতলি এবং নারায়ণপুর গ্রাম নিয়ে গঠিত ২নং ওয়ার্ড এর নির্বাচিত মেম্বার। অপরদিকে প্রত্যয়ন পত্র পাওয়া আসামি ফারুক হোসেন একই ইউনিয়নের ০৭ নং ওয়ার্ড এর কলাখাল গ্রামের বাসিন্দা।

এ বিষয়ে মেম্বার নোমান হোসেন এর বক্তব্য নিতে ফোন করলে তিনি জানান, মামলার ভিকটিম এবং ১নং আসামী বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হয়ে ঘরকন্না করছেন। তাদের একটি পুত্র সন্তানও রয়েছে। কিন্তু মামলার বাদী কোর্ট থেকে মামলা না তোলায়, মামলাটি এখনো চলমান এবং ২নং আসামিকে বারংবার হয়রানি করা হচ্ছে।

আপনি ওয়ার্ড এর মেম্বার হয়ে কোনো নাগরিককে প্রত্যয়ন পত্র দিতে পারেন কী না, এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি জানান, কারো উপকার করা তো দোষের কিছু নয়। তবে, আপনার ঘরের পাশে একটা লোক যদি বিপদে পড়ে তখন আপনি কী তাকে সহযোগিতা করবেন না বলেও প্রশ্ন ছুড়ে দেন তিনি।

ঘটনার বিষয়ে জানতে চাইলে পয়ালগাছা ইউপি চেয়ারম্যান মাঈন উদ্দিন জানান, আমি আসলে বিষয়টি সম্পর্কে অবগত ছিলাম না, আপনার (প্রতিবেদকের) মাধ্যমেই জানলাম। ওই মেম্বার যদি এটা করে থাকে, তবে মারাত্মক আইনলঙ্ঘন করেছে। যেকোনো প্রত্যয়ন কেবলমাত্র একজন চেয়ারম্যানই দিতে পারেন কোনো ওয়ার্ড মেম্বারের প্রত্যয়ন দেওয়ার এখতিয়ার নেই। যদি প্রত্যয়ন পত্র দেওয়ার বিষয়টি সত্য হয় তবে, আমি তার বিরুদ্ধে বিভাগীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের ন্যাস্ত হবো।

বরুড়া উপজেলা নির্বাহী অফিসার আনিসুল ইসলাম বলেন, কোনো ধরনের অন্যায় বরুড়া উপজেলা প্রশাসন বরদাস্ত করবে না। ওয়ার্ড মেম্বার হয়ে কখনো কোনো নাগরিককে প্রত্যয়ন দেওয়ার আইনত অধিকার নেই। খোঁজ নিয়ে বিষয়টি সম্পর্কে জানার এবং তদন্ত করে সত্যতা পেলে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়ার কথাও জানান তিনি।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category
© All rights reserved © 2021 dailysomoyarbangladesh.com
Developed by: A TO Z IT HOST
Tuhin